সাঁকো ভেঙে যাওয়ায় চলাচলে দুর্ভোগ

শেয়ার করুন

দীর্ঘদিন ধরে ব্রিজ না থাকায় পঞ্চগড় সদর উপজেলার দুই ইউনিয়নের মানুষ চাওয়াই নদী দিয়ে পারাপারের এক মাত্র অবলম্বন নড়বড়ে সাঁকো। ব্রিজের অভাবে ১০ টি গ্রামের মানুষ চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

শনিবার সকালে নদীর পানির স্রোতে সেই সাঁকো অর্ধেক অংশ ভেসে যাওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছে দুই ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ।

পঞ্চগড় সদর উপজেলার সাতমেরা এবং ১ নং ওমর খানা বোর্ড বাজারের পশ্চিম রাস্তা পাশে চাওয়াই নদী সাঁকোই দিয়ে সাতমেরা ইউনিয়নের ১০ টি গ্র্রামের প্রায় ৫০ হাজার মানুষের যাতায়াতের ক্ষেত্রে দীর্ঘ দিন ধরে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয় এলাকার সাধারণ মানুষ।

বর্ষা মৌসুমে সাতমেরা ইউনিয়নের খইপাড়া, ডাঙ্গা পাড়া, ফকির পাড়া, সরকার পাড়া, পখিলাগা থেকে ১নং ওমর খানা ইউনিয়নের বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কলেজসহ কয়েক হাজার ছাত্র-ছাত্রী বন্যার সময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চাওয়াই নদীর সাঁকো দিয়ে যাতায়াত করে।

দীর্ঘ দিনের দাবিতে ব্রিজটি নির্মাণের কোন উদ্যোগ না থাকায় এলাকার স্থানীয়রা নিজের টাকা ও চাঁদা তোলে প্রথমে বাঁশ দিয়ে সাঁকোটি নির্মাণ করেন।

এ বিষয়ে সাতমেরা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. আতাউর রহমান বলেন, যোগাযোগের জন্য স্থানীয়দের উদ্যোগে সাঁকোটি নির্মাণ করা হয়েছিল। কিন্তু সাঁকোটি ভেসে যাওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন এই এলাকার মানুষ। তবে এখানে একটি সেতু নির্মাণের চেষ্টা চলছে।

পঞ্চগড় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আরিফ হোসেন বলেন, সাঁকোটি দ্রুত নির্মাণ করে চলাচলের ব্যবস্থা করব।

যেভাবে নিউজ পাঠাবেননিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ [email protected] এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই পঞ্চগড় জেলার সম্পর্কিত হতে হবে।

এখানে আপনার মন্তব্য  জানান

বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, পঞ্চগড় অনলাইন ডট কম এর দায়ভার নেবে না।

মন্তব্য করুন

Back to top button