পঞ্চগড়ে ঈদের ছুটি শেষ হলেও কমেনি যাত্রীর চাপ

শেয়ার করুন

প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদুল আযহা ঈদ উদযাপন শেষে রাজধানী ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছেন কর্মজীবী মানুষেরা।

পঞ্চগড়ে ঈদের ছুটি শেষ হলেও কমেনি যাত্রীর চাপ, ঈদে ফেরা মানুষগুলো ছুটি শেষে যাচ্ছে নিজনিজ কর্মস্থলে তবে যাত্রীর চাপ সামলাতে প্রতিটি ট্রেনে অতিরিক্ত বগি যুক্ত করা হয়েছে, প্রতিদিন সকাল দুপুর রাত্রীকালিন তিনটি ট্রেন ঢাকার উদ্দেশ্য ছেড়ে যায় ৷ ট্রেনগুলো ২/৩ লেটে স্টেশনে ঢুকলেও ছেরে যায় আধা ঘন্টা লেটে, আজ দুপুর ১২ টা ৪০ মিনিটের পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি আধাঘন্টা লেটে ছেড়ে যায়।

ঈদের আগে ঘরে ফেরার মতো এবার ছুটি শেষে ঢাকায় ফিরতেও পদে পদে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে ট্রেন যাত্রীদের। বাড়তি ভাড়া গুনতে হচ্ছে আর টিকিটের জন্য যাত্রীদের হাহাকার অবস্থা। অর্থাৎ বাড়ি ফিরতে যেমন ট্রেনের টিকিটের জন্য ঘন্টার পর ঘন্টার দীর্ঘ লাইনের দাঁড়িয়ে টিকিট নেওয়ার ভোগান্তি পোহাতে হয় ঠিক একই ভাবে বাড়ি থেকে কর্মস্থলে ফিরতেও সেই একই রকম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে ট্রেন যাত্রীদের।

পঞ্চগড় বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম স্টেশনে ঘুরে দেখা গেছে, ঈদের ছুটি শেষ দিন থেকে ঢাকাগামী ট্রেন যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। পঞ্চগড় রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রীরা ঢাকামুখী ট্রেনের ভিড় ছিল দেখার মত। তবে প্রতিটি ট্রেনেই ছিল উপচে পড়া ভিড়। তবে ভিড় সামলাতে অতিরিক্ত বগি যুক্ত করা হয়েছে । ভিড় ঠেলে নারী-পুরুষ, শিশু-বৃদ্ধ সবাই ব্যস্ত ট্রেনে উঠতে। ঈদের ছুটি কাটিয়ে রাজধানী ঢাকায় কর্মস্থলে ফিরতে শুরু করেছে। তবে ট্রেন যাত্রীদের সংখ্যা আসনের চেয়ে দ্বিগুন যাত্রী ছিল। ঈদের সরকারি ছুটির পর থেকে বিভিন্ন সরকারী ও বে-সরকারী অফিস খুলেছে।

পঞ্চগড় এক্সপ্রেসের যাত্রী মাছুমা আক্তার বলেন, নারী যাত্রী হিসেবে পরিবার-পরিজন নিয়ে একটু নির্বিঘে যাত্রা করার জন্য ট্রেনকে বেছে নিয়েছিলাম। কিন্তু ট্রেন পথে বিভিন্ন দুর্ভোগের পর অবশেষে আবারও ঢাকায় যাত্রা করছি। নির্ধারিত সময়ের চেয়ে দেরিতে ট্রেন আসছে, প্রতিটা স্টেশনেই বেশিক্ষণ বিরতির ফলে নির্ধারিত সময়ের স্টেশনে আসছে ট্রেন।

আরেক ট্রেন যাত্রী আলাল হোসেন বলেন, ঈদের ছুটি শেষে কর্মস্থল ঢাকায় যাবো। তিনি একটি পোশাক তৈরির কারখানায় কর্মরত আছে। তিনি বলেন, আসার সময় ট্রেনে এত ভিড় ছিল যে তার নিধারিত আসনে যেতে পারেনি। টিকিট কেটেও ৬ ঘন্টার ট্রেনে দাঁড়িয়ে এসেছে। এবারও টিকিট কেটেছে তবে ট্রেনে যে পরিমান ভিড় দেখা যাচ্ছে তাতে করে কি ট্রেনে উঠতে পারবো কি না চিন্তায় আছে। আবার ছুটি শেষে নির্ধারিত সময়ে অফিসে পৌঁছাতে না পারায় চাকরি থাকবে কিনা তাও জানি না।

এ বিষয়ে পঞ্চগড় রেলওয়ে স্টেশনমাস্টার মাসুদ পারভেজ বলেন, যে সব যাত্রীরা গ্রামে ঈদ করতে এসেছে তারা আবার ঢাকায় ফিরছে। তাই যাত্রীর চাপ বেশি থাকায় এবং যাত্রীদের ট্রেনে ওঠার সুযোগ নিশ্চিত করতে প্রতিটি স্টেশনে একটু বেশি সময় ট্রেন দাঁড়াচ্ছে। এতে কিছুটা দেরি করে ট্রেন আসছে এবং ট্রেন ছেড়ে যাচ্ছে। স্টেশন মাস্টার আরও বলেন, যাত্রীর চাপ থাকায় প্রতিটি ট্রেনে এসি বাথ ও শোভন চেয়ার সহ ২টি করে বগি অতিরিক্ত যোগ করা হয়েছে।

যেভাবে নিউজ পাঠাবেননিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ panchagarhonline@gmail.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই পঞ্চগড় জেলার সম্পর্কিত হতে হবে।

এখানে আপনার মন্তব্য  জানান

বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, পঞ্চগড় অনলাইন ডট কম এর দায়ভার নেবে না।
Back to top button