আজ আবার দেখা মিলেছে কাঞ্চনজঙ্ঘার

শেয়ার করুন

দেখা মিলেছে কাঞ্চনজঙ্ঘার।
আজকের কাঞ্চনজঙ্ঘা (ছবি: সজিব রায় দীপ)

 

আজ আবার দেখা মিলেছে কাঞ্চনজঙ্ঘার।
অক্টোবরের শেষ দিকে কয়েকদিন ভালোভাবে পঞ্চগড়ের বিভিন্ন স্থান থেকে দেখা গেলেও এর পরে আকাশ পরিষ্কার না থাকায় সপ্তাহখানেক আর দেখা যায়নি কাঞ্চনজঙ্ঘার। গত দুইদিন তেতুলিয়া থেকে আবছা ভাবে দেখা গেলেও আজ তেতুলিয়াসহ পঞ্চগড়ের সর্বত্র থেকে পরিষ্কারভাবে দেখা যাচ্ছে পৃথিবীর তৃতীয় উচ্চতম শৃঙ্গ কাঞ্চনজঙ্ঘা।

তৃতীয় অবস্থানে থাকা কাঞ্চনজঙ্ঘার উচ্চতা ৮ হাজার ৫৮৬ মিটার বা ২৮ হাজার ১৬৯ ফিট। যদিও ১৮৫২ সালের আগে কাঞ্চনজঙ্ঘাকে পৃথিবীর সৰ্বোচ্চ শৃঙ্গ বলে মনে করা হতো। ১৯৫৫ সালের ২৫ মে মাসে ব্রিটিশ পবর্তারোহী দলের সদস্য জোয়ে ব্রাউন এবং জর্জ ব্যান্ড সর্বপ্রথম কাঞ্চনজঙ্ঘায় আরোহণ করেন। এদিকে, সুউচ্চ এই চূড়া দেখতে প্রতি বছর অসংখ্য দেশি-বিদেশি পর্যটক ছুটে যান ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং জেলা শহরের টাইগার হিল পয়েন্টে। টাইগার হিলই হচ্ছে কাঞ্চনজঙ্ঘার চূড়া দেখার সবচেয়ে আদর্শ জায়গা। তবে কেউ কেউ যান সান্দাকপু বা ফালুট।

আবার কেউ কেউ সরাসরি নেপালে গিয়েও কাঞ্চনজঙ্ঘা পর্যবেক্ষণ করে থাকেন। তবে যাদের এসব সুযোগ মেলে না সেইসব বাংলাদেশি পর্যটকেরা কাঞ্চনজঙ্ঘার রূপ অবলোকন করতে ছুটে যান তেঁতুলিয়ার বাংলাবান্ধায়। এখানে মেঘমুক্ত আকাশে দিনের প্রথম সূর্যকিরণের সঙ্গে সঙ্গেই চোখে পড়ে কাঞ্চনজঙ্ঘার।

প্রিয় পাঠক, শীতপ্রবণ আমাদের পঞ্চগড় জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে দেখা যাচ্ছে বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতমালা হিমালয় ও কাঞ্চনজঙ্ঘা। আপনার তোলা কাঞ্চনজঙ্ঘার দুর্লভ চিত্রসহ লিখে আমাদের পাঠাতে পারেন। আমরা আপনার নামসহ যথারীতি তা প্রকাশ করব। পঞ্চগড় ভ্রমণ গাইডে লেখা পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ [email protected] এই মেইল ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে লেখা পাঠাতে পারেন।

 

যেভাবে নিউজ পাঠাবেননিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ [email protected] এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই পঞ্চগড় জেলার সম্পর্কিত হতে হবে।

এখানে আপনার মন্তব্য  জানান

বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, পঞ্চগড় অনলাইন ডট কম এর দায়ভার নেবে না।
Back to top button